কুলাউড়ায় নৌকার অফিসে হামলা-ভাংচুর, আহত ৫

ডিসেম্বর ১৯, ২০১৮, ২:০২ অপরাহ্ণ 👉 এই সংবাদটি ১৩৮ বার পড়া হয়েছে

Loading...

বিশেষ প্রতিনিধি: মৌলভীবাজার-২ কুলাউড়া নির্বাচনী আসনে ১৬ ডিসেম্বর রোববার রাত ৮টায় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদের ধানের শীষের সমর্থকরা হামলা চালিয়ে মহাজোটের প্রার্থী এম এম শাহীনের নৌকার অফিসে ভাংচুর করেছে। হামলাকারীদের আক্রমণে নৌকার ৫ কর্মী সমর্থক আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে তিনজন বর্তমানে কুলাউড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় এলাকায় তুমুল উত্তেজনা বিরাজ করছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, দু’ শতাধিক নেতাকর্মী ধানের শীষের মিছিল করে এসে পার্শ্ববর্তী কাদিপুর ইউনিয়নের ঢুলিপাড়ায় নৌকার অফিসে হামলা ও ভাঙচুর চালায়। ঘটনার সময় নৌকার অফিসে অবস্থানরত মনি মিয়া (২০), ছোট মিয়া (১৯), রাজু আহমদ (২০) সহ ৫ জন আহত হয়। এ সময় হামলাকারীরা নৌকার অফিসে তান্ডবলীলা চালায়। অফিসের সকল আসবাবপত্র ভাংচুর করে। খবর পেয়ে কুলাউড়া থানার এস আই মঈন উদ্দিনসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। অবস্থা বেগতিক দেখে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে প্রথমে ব্যর্থ হলেও পরে কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শামীম মূসার নেতৃত্বে এস আই জহিরসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে হামলাকারীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করে। কুলাউড়া উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি বদরুল ইসলাম বদর জানান, জামাত শিবিরসহ বিএনপির নেতাকর্মীরা পরিকল্পিতভাবে এই হামলা চালিয়েছে। কুলাউড়ার নির্বাচনী পরিস্থিতি অশান্ত করতেই এই হামলা চালানো হয়। কুলাউড়া থানার এসআই জহির জানান, পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে।
কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শামীম মূসা মুঠোফোনে জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করলে থানায় মামলা নেয়া হবে। ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

loading...