কুলাউড়ায় ৪ দিনের ব্যবধানে আবারও নৌকার ২ অফিসে হামলা ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ আহত-১৫

ডিসেম্বর ২০, ২০১৮, ৯:১৯ অপরাহ্ণ 👉 এই সংবাদটি ৭৪ বার পড়া হয়েছে

Loading...

কুলাউড়া প্রতিনিধি: মাত্র ৪ দিনের ব্যবধানে আবারও মৌলভীবাজার-০২ কুলাউড়া আসনে নৌকা মার্কার দু’টি অফিসে হামলা চালিয়ে অফিস ভাঙচুর করেছে। পৃথক সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছে। এছাড়া মৌলভীবাজার-০৩ আসনে রাজনগর উপজেলায় নৌকার প্রচার গাড়ীতে হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
নৌকার আহত কর্মীরা ও পুলিশ জানায়, ১৯ ডিসেম্বর বুধবার রাত ৯টায় উপজেলার হাজীপুর ইউনিয়নের হেলাল মেম্বারের নেতৃত্বে ৪-৫টি মোটরসাইকেল যোগে সন্ত্রাসীরা হাজীপুর ইউনিয়ন সংলগ্ন নৌকা প্রতিকের অফিসে অতর্কিতে হামলা চালায়। এসময় নৌকার অফিসে অবস্থানরত রনচাপ গ্রামের বিধান দে (৪২), ইসমাইলপুর গ্রামের আব্দুল আজিজ (৪৩), আব্দুল ওয়াহিদ (৪৮), নজরুল ইসলাম (৪০), জয়নাল আবেদিন (৩৫), আব্দুল হান্নান (৪২) ও মেম্বার শেখ মোঃ আব্দুর রউফ (৪৮) আহত হন। হামলাকারীরা অফিস ভাঙচুর করে চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করে।
ভূকশিমইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাঙ্গির আলম জানান, ১৮ ডিসেম্বর বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ভূকশিমইলে ধানের শীষ প্রতিকের প্রার্থী সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ সমর্থনে জনসভা শেষে তাঁর নেতাকর্মীরা মিছিল সহকারে নৌকার অফিসে অতর্কিত হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেন। এসময় অফিসে বসা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্বায়ক শিবলু মিয়া (২২) ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি এবাদুর রহমান (২১) সহ ৬ জন নৌকার কর্মী সমর্থক আহত হয়েছেন। আহতদের কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। জনসভা চলার কারণে নৌকার অফিসে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি ছিলো কম। খবর পেয়ে কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্তীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। পরে নৌকার কর্মী সমর্থকরা এক বিক্ষোভ মিছিল বের করে।
বুধবার রাত ১১ টার দিকে বাড়ি ফেরার পথে রাজনগর উপজেলা পরিষদের উত্তর পাশে নৌকা প্রতিকের প্রচারগাড়ী টমটম পৌঁছালে একদল দুর্বৃত্ত গাড়িটিতে হামলা চালায়। এসময় ড্রাইভারকে মারধর করা হয়। গাড়িতে নৌকা প্রতিকের সাঁটানো পোষ্টার ছিড়ে ফেলা হয় এবং গাড়ির সামনের ও পেছনের গ্লাস ভেঙ্গে ফেলে দূর্বৃত্তরা। এসময় চালকের চিৎকারে লোকজন ঘটনাস্থলে দৌঁড়ে এলে হামলাকারিরা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে রাজনগর থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
উল্লেখ্য, এর আগে গত ১৬ ডিসেম্বর রাত ৮টায় ধানের শীষের সমর্থকরা হামলা চালিয়ে কুলাউড়ায় নৌকার অফিস ভাঙচুর করেছে। স্থানীয় লোকজন প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, রাউৎগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল জামালের নেতৃত্বে দু’ শতাধিক নেতাকর্মী ধানের শীষের মিছিল করে এসে পাশর্^বর্তী কাদিপুর ইউনিয়নের ঢুলিপাড়া নৌকার অফিসে হামলা ও ভাঙচুর চালায়। ঘটনার সময় অফিসে অবস্থানরত মনি মিয়া (২০), ছোট (১৯), রাজু আহমদ (২০)সহ ৫ জন আহত হয়। এসময় হামলাকারীরা নৌকার অফিসে তান্ডবলীলা চালায়। অফিসের সকল আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। খবর পেয়ে কুলাউড়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করে।
কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্তী জানান, কাদিপুরের হামলার ঘটনায় ৬৪ জনের নামোল্লেখসহ আরও অজ্ঞাতনামা ২০-২৫ জনকে আসামী করা হয়েছে। ভুকশিমইল ইউনিয়নের ঘটনায় ৩১ জনের নামোল্লেখসহ আরও ৩০-৩৫ জনকে আসামী করা হয়েছে। হাজীপুর ইউনিয়নের ঘটনায় ৫০ জনের নামোল্লেখসহ আরও অজ্ঞাতনামা ২০-২৫ জনকে আসামী করা হয়েছে।

loading...
error: এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা আংশিক নকল করে বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি