কাছে টানে মৌলভীবাজারের মনু ব্যারেজের পাশে রাঙাউটি রিসোর্ট

সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৬, ৫:৪১ অপরাহ্ণ 👉 এই সংবাদটি ২০৪ বার পড়া হয়েছে

Loading...

বিশেষ প্রতিনিধি: মৌলভীবাজার জেলা শহর থেকে মাত্র ২ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত মনু ব্যারেজের পাশে নির্মিত রাঙাউটি রিসোর্টটি এবারের ঈদুল আজহায় যেনো নতুন সাজে সেজেছে। পুরো এলাকায় করা হয়েছে আলোকসজ্জা। নতুন করে রং লাগিয়ে রিসোর্টকে করা হয়েছে আরও আকর্ষণীয়। গ্রামীণ ডিজাইনে নির্মাণ করা হয়েছে ৪টি নতুন কটেজ। সম্পূর্ণ গ্রামীণ পরিবেশে সাজানো এ রিসোর্টে রয়েছে আধুনিক সকল সুযোগ-সুবিধা। রির্সোটের অন্যতম আকর্ষণ হলো ভাসমান কটেজ। এখানে ৪ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ১৫ হাজার টাকায় এসি,নন-এসি রুম বুকিং করা যায়। পর্যটকদের সুবিধার্থে রিসোর্টের ভেতরে তৈরি করা হয়েছে একটি রেস্টুরেন্ট। এবারের ঈদের ছুটি কাটাতে রাজধানী ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটসহ দেশের অনান্য এলাকা থেকে অসংখ্য ভ্রমণপিপাসুরা ঈদের আগে থেকেই রির্সোটে অগ্রিম বুকিং দিয়ে রাখেন। প্রতি বছরের মতো এবারও ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে বাংলাদেশের অন্যতম পর্যটন জেলা চায়ের রাজধানীখ্যাত 5433মৌলভীবাজার পর্যটকদের পদভারে মুখরিত হয়ে উঠেছে। ঈদের আগেই জেলার বিভিন্ন আবাসিক হোটেল, টি রিসোর্ট, ইকো-কটেজ, বিটিআরআই রেস্ট হাউজ, গ্র্যান্ড সুলতান টি রির্সোট এণ্ড গলফ, দুসাই রিসোর্ট, টি হ্যাভেন রিসোর্ট, শ্রীমঙ্গল ইন, লাউয়াছড়া বাঙলো ও স্কাই পার্কসহ অন্যান্য রেস্টহাউজগুলোর অধিকাংশই অগ্রিম বুকিং হয়ে যায়। এজন্য এবার হাজার হাজার পর্যটকের আগমন ঘটে জেলার বিভিন্ন পিকনিক স্পটে। বাংলাদেশে পর্যটনের অপার সম্ভাবনাময় মৌলভীবাজার জেলা হচ্ছে প্রকৃতির অসীম সৌন্দর্য্যের আঁধার। পাহাড়, নদী, অরণ্য, হাওর আর সবুজ চা বাগানঘেরা এই জেলায় আছে আদিবাসীদের বৈচিত্র্যময় সংস্কৃতি। এখানে আছে দিগন্ত জোড়া হাকালুকি ও হাইল হাওর। সারি সারি চায়ের বাগান। মাধবকুণ্ড ও হামহাম জলপ্রপাত। নতুনভাবে আবিষ্কৃত বড়লেখার আরও একাধিক ঝরণা। আছে পাখি ও মাছের অভয়ারণ্য বাইক্কা বিল। পশু, পাখি ও গাছপালার রাজ্য লাউয়াছড়া উদ্যান।

loading...
error: এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা আংশিক নকল করে বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি