যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার জবাবে সিরিয়ায় ইসরায়েলের হামলা

ফেব্রুয়ারী ১১, ২০১৮, ১২:১৯ অপরাহ্ণ 👉 এই সংবাদটি ৭৯ বার পড়া হয়েছে

Loading...

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সিরিয়ার বিমান ঘাঁটিতে গত ৩০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বিমান হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি করেছে ইসরায়েল।

দেশটির একটি যুদ্ধবিমানকে সিরিয়ার সেনাবাহিনী ভূপাতিত করার পর ইসরায়েলের পক্ষ থেকে বিমান হামলা চালানোর এই দাবি করা হয়েছে বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ইসরায়েলের বিমান বাহিনীর শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা টমার বার জানান, ১৯৮২ সালের লেবানন যুদ্ধের পর থেকে সিরিয়ার বিরুদ্ধে চালানো এটাই এ ধরনের সবচেয়ে ভয়াবহ হামলা এবং এতে সিরীয় বাহিনীর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

সিরীয় বাহিনী ইসরায়েলি একটি বিমানকে ভূপাতিত করার পাল্টা জবাব হিসেবে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে উল্লেখ করেন টমার বার। সিরিয়ার বিমান ঘাঁটি ছাড়াও সেখানে অবস্থিত ইরানি সেনা-ঘাঁটিতেও হামলা চালানো হয় বলে জানান তিনি।

ইসরায়েলের দাবি, তাদের সীমান্তের ভেতর ঢুকে পড়া একটি ইরানি ড্রোনকে গুলি করে ভূপাতিত করে সেনারা। এরপর সিরীয় ও ইরানি সেনা-ঘাঁটিতে আক্রমণ চালানো হয় ইসরায়েলি বিমান থেকে। এর পাল্টা জবাবে সিরীয় বাহিনী গুলি ছুঁড়লে ইসরায়েলের একটি বিমান সীমানার ভেতরে পড়ে যায়।

পাল্টা হামলায় দামেস্কের কাছে সিরিয়ার বেশ কয়েকটি সেনা-ঘাঁটিতে আক্রমণ চালায় ইসরায়েল। তবে সিরিয়া ও তাদের মিত্র ইরান বলেছে, তাদের কোনো ড্রোন ইসরায়েলের সীমান্তে প্রবেশ করেনি।

এদিকে এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে রাশিয়া। একই সঙ্গে দেশটি সব পক্ষকেই ধৈর্য ধারণ করার আহ্বান জানিয়েছে।

loading...
error: এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা আংশিক নকল করে বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি